১০ লাখ ক্ষয়ক্ষতি, শহরের কলাতলীতে নির্মাণাধীন বাড়ি ভাংচুর।

১০ লাখ ক্ষয়ক্ষতি,
শহরের কলাতলীতে নির্মাণাধীন বাড়ি ভাংচুর।

সাইফুল ইসলাম আজাদ
কক্সবাজার থানা প্রতিনিধি

কক্সবাজার শহরের কলাতলীতে গভীর রাতে সন্ত্রাসী নির্মাণাধীন একটি বাড়ি ভাংচুর করেছে। এতে প্রায় ১০ লাখ টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রোববার ভোররাত তিনটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।
ওই বাড়ির কেয়ারটেকার শাহেদুল ইসলাম জানিয়েছেন, কলাতলী ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটির পশ্চিম এই জায়গাটি দীর্ঘদিন ধরে দখলের চেষ্টা করে আসছিলো। কিন্তু তাতে ব্যর্থ হয়। জমিটি মুল মালিক থেকে ক্রয় করে বায়নামা করেছেন শহীদুল হক সোহেল গং। এই গংটি জায়গাটি নিয়ে চারদিকে সীমানা দেয়াল নির্মাণ করে এবং এরপর একটি বসতবাড়ির নির্মাণ করেন। ওই বাড়ির কাজ প্রায় শেষ হয়েছে।
কেয়ারটেকার শাহেদুল ইসলাম বলেন, এর মধ্যে রোববার রাত তিনটার দিকে কলাতলীর নূরুল ইসলামের পুত্র জাহেদ হোসেনের নেতৃত্বে আনোয়ার হোসেন, মোহাম্মদ নূর এবং এরশাদসহ ১০/১২ জন সশস্ত্র লোক এসে ওই বাড়ি বড় বড় হাতুড়ি দিয়ে ভাংচুর শুরু করে। প্রায় আধাঘন্টা ধরে ভাংচুর চালিয়ে বাড়ির অধিকাংশ দেয়াল ও পিলার গুড়িয়ে দেয়। এসময় কেয়ারটেকার হিসেবে বাধা দিতে গেলে আমাকে গুলি করে হত্যার হুমকি। ভাংচুরের সময় এক ত্রাসের পরিস্থিতি সৃষ্টি করে।
এক পর্যায়ে ভীত হয়ে পাশের হোটেলের লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে টহল পুলিশ দ্রæত ঘটনাস্থলে অভিযানে যায়। পুলিশ গেলে পালিয়ে যায়। এই তাদের হামলা ও ভাংচুর সিসি ক্যামেরায় সংরক্ষণ রয়েছে।
শহীদুল হক সোহেল গং অভিযোগ করেছেন, জাহেদ একজন সন্ত্রাসী। সে ভাড়াটে সন্ত্রাসী হিসেবে এই বাড়ি ভাংচুর করেছে। এই ভাংচুরের অন্তত ১০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত মালিকপক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.