শার্শা থানার হাতেম আলী সরদার হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার, মূল রহস্য উদঘাটন

শার্শা থানার হাতেম আলী সরদার হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার, মূল রহস্য উদঘাটন

নিউজ ডেস্কঃ ঘটনার সংক্ষিপ্ত বিবরণঃ
ইং-১৩/০৮/২০২১ তারিখ বেলা অনুমান ১২:০০ ঘটিকার সময় বাদীনি মোছাঃ আসমা খাতুন এর বড় ভাসুর মোঃ জহুর আলী সরদার এর সহিত আসামীদ্বয়ের রাস্তা দিয়ে চলাচলের বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। ইং-১৩/০৮/২০২১ তারিখ বাদিনীর স্বামী ভিকটিম হাতেম আলী সরদার (৩৪) জুম্মার নামাজ পর দুপুরের খাওয়া-দাওয়া শেষে বাড়িতে বিশ্রামে থাকা কালে একই তারিখ বিকাল অনুমান ০৩:০০ ঘটিকার সময় (১) মোঃ বাবলু সরদার (৩২), (২) মোঃ জাহাঙ্গীর সরদার(৩৫)
দ্বয় বাড়ির চলাচলের রাস্তার বিষয়ে আলোচনার কথা বলিয়া বাদিনীর স্বামীকে রাস্তায় ডেকে নিয়ে যায় এবং বাদিনীর স্বামী সরল বিশ্বাসে তাদের কথা মত রাস্তার বিষয়টি আপোষ-মীমাংসা করার উদ্দেশ্যে শার্শা থানাধীন লাউতাড়া গ্রামস্থ বাদিনীর বসত ঘরের পশ্চিম পার্শ্বে আসামীদের বসত বাড়ির সামনে কাঁচা রাস্তায় পৌঁছা মাত্রই বিকাল অনুমান ০৩.১৫ ঘটিকায় আসামীদ্বয় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে বাদিনীর স্বামীকে হত্যার উদ্দেশ্যে ১নং আসামীর হাতে থাকা বাঁশের ভারী লাঠি দিয়ে মাথা লক্ষ্য করে আঘাত করলে উক্ত আঘাত বাদীনির স্বামীর মাথার বাম পার্শ্বে লাগিয়া মারাত্মক গুরুতর আঘাত প্রাপ্ত হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে ২নং আসামীর হাতে থাকা লাঠিদ্বারা শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে জখম করে। তখন বাদিনীর স্বামীর ডাক-চিৎকারে স্থানীয় সাক্ষীগণ এগিয়ে আসলে আসামীদ্বয় ঘটনাস্থল হতে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে অত্র মামলার ভিকটিমকে প্রথমে যশোর সদর হাসপাতালে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে গেলে ভিকটিম চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ইং-১৫/০৮/২০২১ তারিখ দুপুর অনুমান ০১:০০ ঘটিকার সময় বাদিনীর স্বামী মৃত্যুবরন করেন। এ সংক্রান্ত শার্শা থানার মামলা নং-০৬, তাং-১৫/০৮/২১ খ্রিঃ, ধারা-৩০২/৩৪ পেনাল কোড রুজু হয়।

পুলিশ সুপার যশোর মহোদয়ের নির্দেশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডিএসবি) জনাব জাহাঙ্গীর আলম মামলাটির তদন্তভার জেলা গোয়েন্দা শাখার উপর ন্যাস্ত করেন। অফিসার ইনচার্জ, জেলা গোয়েন্দা শাখা জনাব রুপন কুমার সরকার, পিপিএম মামলাটির তদন্তভার এসআই (নিঃ) মোঃ সোলাইমান আক্কাস এর উপর ন্যাস্ত করেন।

অভিযানঃ পুলিশ সুপার মহোদয়ের দিক-নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, ডিএসবি (পুলিশ সুপার ভারপ্রাপ্ত) জনাব জাহাঙ্গীর আলম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) জনাব সাইফুল ইসলাম দ্বয়ের তত্ত্বাবধানে জনাব রুপণ কুমার সরকার, পিপিএম, অফিসার ইনচার্জ, জেলা গোয়েন্দা শাখার নেতৃত্বে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোঃ সোলাইমান আক্কাস, এসআই মোঃ শামীম হোসেনদ্বয়ের সমন্বয়ে গঠিত একটা চৌকস টিম তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায়
আসামীদ্বয়ের অবস্থান সনাক্তপূর্বক অদ্য ইং-১৯/০৮/২০২১ তারিখ ভোর রাত ০২:০৫ ঘটিকার সময় অভিযান পরিচালনা করিয়া যশোর কোতয়ালী মডেল থানাধীন বলরামপুর গ্রামস্থ মোঃ আজগর আলী সরদার এর বসতবাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে ঘটনার সহিত প্রত্যেক্ষভাবে জড়িত আসামী (১) মোঃ বাবলু সরদার (৩২), (২) মোঃ জাহাঙ্গীর সরদার (৩৫) দ্বয়কে গ্রেফতার করেন এবং তাদের হেফাজত হতে ০২ টি মোবাইল ফোন জব্দ করেন।

আসামী ও মামলার ভিকটিম মৃত হাতেম আলী পরস্পর আত্মীয়-স্বজন। পূর্ব হতে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এই হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে মর্মে আসামীদ্বয় স্বীকার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের নাম ও ঠিকানাঃ
(১) মোঃ বাবলু সরদার (৩২), (২) মোঃ জাহাঙ্গীর সরদার (৩৫), উভয় পিতামৃত- মশিয়ার সরদার, সাং-
লাউতাড়া, থানা-শার্শা, জেলা-যশোর।

জব্দকৃত আলামতঃ
(১) মোবাইল ফোন-০২ টি।

“বাংলাদেশ পুলিশের শপথ- দেশের মানুষকে রাখবো নিরাপদ” সত্য উদঘাটনে বদ্ধ পরিকর, যশোর জেলা পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.