দেবহাটায় তিন নারী করোনায় আক্রান্ত: বাড়ি লকডাউন

দেবহাটা প্রতিনিধি:

দেবহাটায় নতুন করে তিন নারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। সম্প্রতি ওই তিন নারীর শরীরে করোনা’র উপসর্গ দেখা দিলে ৯ এপ্রিল সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ওই তিন নারীর নমুনা সংগ্রহের পর পরীক্ষা শেষে বুধবার তাদের করোনাক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন চিকিৎসকরা।

করোনাক্রান্তরা হলেন, উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক বাবু’র মেয়ে আয়শা (২৩), জগন্নাথপুর গ্রামের মৃত ওহাব সরদারে স্ত্রী জাহানারা বেগম (৭৮) ও তার ভাতিজি লিমা (২৮)।

আক্রান্তরা প্রত্যেকেই স্ব স্ব বাড়িতে রয়েছেন এবং উপসর্গ থাকলেও মোটামুটি সুস্থ্য রয়েছেন বলে জানিয়েছেন দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. আব্দুল লতিফ এবং আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. বিপ্লব মন্ডল।

এদিকে বৃহষ্পতিবার করোনাক্রান্ত তিন নারীর বাড়ি পরবর্তী পনের দিনের জন্য লকডাউন ঘোষনা করেছে প্রশাসন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তারের নেতৃত্বে উপজেলা প্রশাসন ও থানার পুলিশ সদস্যদের উপস্থিতিতে করোনাক্রান্তদের বাড়ি লকডাউন করা হয়।

এসময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার শফিউল বশার, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী জুয়েল হোসেন, এসআই মোজাম্মেল, এসআই মিজানুর উপস্থিত ছিলেন।

এব্যাপারে নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তার বলেন, করোনাক্রান্ত প্রত্যেকের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তিসহ তাদের পরিবারের কেউ যাতে বাড়ির বাইরে বের না হয় এবং বাইরে থেকে কেউ যেন আক্রান্তদের বাড়িতে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশদের কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

তাছাড়া উপজেলা কন্ট্রোল রুম থেকে সার্বক্ষনিক মোবাইলের মাধ্যমে আক্রান্ত পরিবারের খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। আক্রান্ত পরিবারের জরুরী প্রয়োজনীয় ঔষধ বা অন্যান্য মালামাল রুম থেকে সরবরাহ করা হবে বলেও জানান ইউএনও। পাশাপাশি মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষার জন্য সকলকে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ, মাস্ক পরিধানসহ লকডাউন কালীন সময়ে বিনা প্রয়োজনে বাড়ি থেকে বের না হওয়ারও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.