তাহিরপুরে এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

তাহিরপুরে এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

সাবজল হোসাইন:
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তবর্তী হাওর থেকে জাহাঙ্গীর আলম (২৮) নামে এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
শনিবার দুপুরে পুলিশ ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
নিহত জাহাঙ্গীর উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের মাহারাম (নদীর উত্তর পাড়) গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে। জাহাঙ্গীরের স্ত্রী ও ৭ মাসের এক শিশু কন্যা রয়েছে।
শনিবার দুপুরে তাহিরপুর থানার ওসি প্রাথমিকভাবে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
নিহতের পিতা মোহাম্মদ আলী এ প্রতিবেদক কে জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত এশার নামাজের পর পূর্ব পরিচিতি কয়েক জন ব্যাক্তি জাহাঙ্গীরকে উপজেলার মাহারামে(নদীর উত্তর পাড়)’র বাড়ি হতে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর ওই রাতে জাহাঙ্গীর আর বাড়ি ফিরেনি।
পরদিন শনিবার সকালে উপজেলার শান্তিপুর নদীর উত্তর তীরবর্তী পছাশইল বন্যার টোপ চৌদ্দ প্লট নামক সীমান্তের নির্জন হাওরে এক ব্যাক্তির জবাইকরা গলা কাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখেন পথচারীগণ।
এরপর পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছে লাশটি জাহাঙ্গীরের বলে শনাক্ত করেন।
খবর পেয়ে বেলা ১১টায় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সুরতাহাল রিপোর্ট তৈরীর পর দুপুরে লাশ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য নোয়াজ আলী ও ৫নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য আবু তাহের জানান, পুলিশ সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী কালে নিহত জাহাঙ্গীরের জবাইকরা গলাকাটা, মাথা- মুখ মন্ডল সহ শরীরের কমপক্ষে সাত স্থানে দেশীয় তৈরী ধারালো অস্ত্রের একাধিক আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।
শনিবার দুপুরে তাহিরপুর থানার ওসি মো. আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন, ধারণা করছি কয়েকজন দুবৃক্ত সংঘবদ্ধ হয়ে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে এ বর্বর হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.