কালিয়াকৈরে পুলিশকে লক্ষ্যকরে ককটেল বিস্ফোরণ, হেফাজতের সভাপতিসহ গ্রেপ্তার-৩

কালিয়াকৈরে পুলিশকে লক্ষ্যকরে ককটেল বিস্ফোরণ, হেফাজতের সভাপতিসহ গ্রেপ্তার-৩

পুনম শাহরীয়ার ঋতু, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চন্দ্রা ত্রিমোর এলাকায় চন্দ্রা টু কালামপুর আঞ্চলিক সড়কে গতকাল রবিবার রাতে হেফাজতে ইসলামের মিছিলে পুলিশের বাধাঁ দেওয়ায় ককটেল বিষ্ফোরণ করে হেফাজতের নেতাকর্মীরা। এসময় উপজেলা হেফাজতের সভাপতি ইমদাদুল হকসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, উপজেলার ডাইনকিনি গ্রামের সিরাজুল ইসলামের তিন ছেলে সভাপতি ইমদাদুল হক(৫০), মোহাম্মদ আলী(৪৮) ও আশরাফুল(৪০)।
আহতরা হলেন, কালিয়াকৈর থানার এসআই মোরশেদ আলী মোল্লা, কনস্টেবল আবু সাঈদ ও আব্দুল লতিফ।
এজহার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলা চন্দ্রা এলাকায় গতকাল রবিবার রাতে হেফাজতে ইসলামের মামুনুল হকের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে রাতে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৪০-৫০ জন হেফাজত ইসলামের নেতাকর্মীরা রাস্তায় বিক্ষোভ করে। এসময় খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মিছিলে বাঁধা দিলে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল বিষ্ফোরণ করে। এঘটনায় পুলিশের এসআই মোরশেদসহ দুই কনস্টেবল গুরুতর আহত হয়। পরে পুলিশ তাদেরকে লক্ষ্য করে আট রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়লে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে ৩ টি তাজা ককটেল উদ্ধার করে। পুলিশ ওই স্থান থেকে অভিযান চালিয়ে হেফাজতে ইসলামের উপজেলা সভাপতি ইমাদাদুল হকসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেন। এঘটনায় কালিয়াকৈর থানায় ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরোও ২০-২৫ জনের নামে একটি মামলা দায়ের করা হয়। আহত ৩ পুলিশ সদস্যদের উপজেলা সাস্থ্য-কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে । পরে গ্রেপ্তারকৃতদের গাজীপুর জেল হাজতে প্রেরণ করেন।
কালিয়াকৈর থানার (ওসি) মো.মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, নাশকতার করার উদ্দেশ্যে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা ককটেল বিষ্ফোরণ করে। পরে হেফাজতে ইসলামের সভাপতি ইমদাদুল হকসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৩ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.