কলারোয়ায় ভারত থেকে পালিয়ে আসা নারীকে ফেরত দিলো বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বিজিবি

কলারোয়ায় ভারত থেকে পালিয়ে আসা নারীকে ফেরত দিলো বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বিজিবি

জুলফিকার আলী,কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি: ভারত থেকে পালিয়ে আসা এক নারীকে পাতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ফেরত দিলো বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বিজিবি। বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে ওই নারীকে ফেরত দেয়া হয়। সাতক্ষীরার কলারোয়ায় সীমান্তের সাব পিলার ১৩এর ৩ আরবি ৫ এর কাছে ওই পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশী বিজিবির পক্ষে কাঁকডাঙ্গা বিওপির কমান্ডার আ ফ ম ওসমানীর নেতৃত্বে ৬ সদস্য বিশিষ্ট বিজিবি প্রতিনিধিদল ও ভারতের তারালী বিএসএফ ক্যাম্পের পক্ষে কমান্ডার রিশি মিশারা, সাব ইন্সেপেক্টর দলিল সিং সহ ৬ সদস্য বিশিষ্ট বিএসএফ প্রতিনিধিদল সেখানে উপস্থিত ছিলেন। জানা গেছে-ভারতের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার স্বরুপনগর থানার হাকিমপুরের তারালী গ্রামের মৃত জালাল সরদারের কন্যা খাদিজা খাতুন (২৪) ফেইসবুকের মাধ্যমে বাংলাদেশের যাশোর জেলার শার্শা থানার চালতিবাড়ীয়ার দিঘার সোনাতনকাটি গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে মাহাবুবুর রহমানের সাথে প্রেমের সম্পর্ক সৃষ্টি হয়। সে এই প্রেমের কারনে ২ ছেলে রেখে ভারত থেকে গত ২ মে পালিয়ে বাংলাদেশে চলে আসে। এঘটনায় তারালী পুলিশ ক্যাম্পে একটি সাধারণ ডায়েরী করে ওই নারী স্বামী এর পরে বাংলাদেশে জাস্টিস কেয়ার নামে একটি সংস্থা ওই নারীর সন্ধান শুরু করে। বিভিন্ন স্থানে খোজ খোবর করে জানতে পারেন যে যাশোর জেলার শার্শা থানার চালতিবাড়ীয়ার দিঘার সোনাতনকাটি গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে মাহাবুবুর রহমানের বাড়ীতে আছে। ওই নারী তার ভুল বুঝতে পেরে স্থানীয় ইউপির চেয়ারম্যান বকুলের বাড়ীতে আশ্রায় নেয়। পরে সেখান থেকে সে কলারোয়া সীমান্ত দিয়ে ভারতে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে কলারোয়া উপজেলার কেঁড়াগাছি ইউনিয়নের গাড়াখালী গ্রামের ইউপি সদস্য ইয়ার আলী বিষয়টি জানতে পেরে বিজিবির জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা, কলারোয়া থানা পুলিশ, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতিকে অবহিত করেন। পরে বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে বিজিবি ও বিএসএফ এর পক্ষ থেকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ওই নারীকে ফেরত দেয়া হয়। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন-কলারোয়া পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু, কেঁড়াগাছি ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যার পদ প্রার্থী ভুট্টো লাল গাইন, ইউপি সদস্য ইয়ার আলী, বাংলাদেশে জাস্টিস কেয়ারের প্রতিনিধি এবিএম মহিদ হোসেন, জেলা মানবপাচার প্রতিরোধ কমিটির প্রতিনিধি সাকিব ও সংবাদ কর্মীবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.