কলারোয়ায় এক স্কুল ছাত্রী ও এক বৃদ্ধর আত্নহত্যা

কলারোয়ায় এক স্কুল ছাত্রী ও এক বৃদ্ধর আত্নহত্যা

রাজু রায়হান

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়ায় এক স্কুল ছাত্রী ও এক বৃদ্ধর আত্নহনন করেছে। এঘটনায় কলারোয়ায় পৃথক ভাবে দুটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হয়েছে। থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়- উপজেলার দক্ষিণ ক্ষেত্রপাড়া গ্রামের জব্বার মোল্লার ছেলে খালেক মোল্লা (৫৫) ২২মে রাত সাড়ে ১২টা হতে সকাল সাড়ে ৬টার মধ্যে যে কোন সময় নিজ বসত ঘরের আড়ায় দড়ি পেচাইয়া গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করে। এঘটনায় নিহতের ভাইপো সিরাজ মোল্লা বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে এতথ্য জানিয়েছেন। অপর দিকে উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত. মুজিবার রহমানের মেয়ে হিরা খাতুন (১৬) মেয়ে দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে মোবাইল ফোন কিনে না দেওয়ায় গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্নহত্যা করার চেষ্টা করে। বাড়ীর লোকজন জানতে পেরে প্রথমে কলারোয়া ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে শনিবার বেলা দেড়টার দিকে সে মারা যায়। ওই ছাত্রীর মা নাজমা খাতুন ও চাচাতো ভাই কবিরুল ইসলাম জানান-মেয়ে হিরা খাতুন কয়েক দিন ধরে একটি মোবাইল ফোন কেনার জন্য আবদার করে। অভাবের সংসার বাড়ীতে কোন টাকা পয়সা না থাকায় তার ফোন কিনে দিতে পারেন নি। সে কারণে সে হয়তো রেগে গিয়ে সকলের অজান্তে গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করে আত্নহত্যার চেষ্টা করে। এঘটনায় কলারোয়া থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ উভয় লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *