এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে সরকারী ছুটি ঘোষণা করুন -বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফিজুর রহমান।

এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে সরকারী ছুটি ঘোষণা করুন -বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফিজুর রহমান।

ফুলবাড়ীয়া প্রতিনিধিঃ সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকী ১৪ জুলাই সরকারী ছুটি ঘোষণার দাবী জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি ও এর সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ । সেই সাথে পল্লীবন্ধুর প্রতি সম্মান জানিয়ে আগামী ১৪ জুলাই ঘোষিত জাতীয় সংসদের উপনির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনেরও দাবী জানিয়েছেন। মঙ্গলবার বিকালে ঢাকার কাকরাইল সেগুন বাগিচায় জাপা মহানগর দক্ষিণ কার্যালয়ে আয়োজিত এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকী উৎযাপনে প্রস্তুতি সভায় নেতারা এসব দাবী জানান। সভায় জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও ময়মনসিংহ জেলা জাপার সহসাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফিজুর রহমান বাবুল বলেন- এদেশে একটা দীর্ঘ সময় ধরে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে দেশ ও জাতিকে সেবা করে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন পল্লীবন্ধু আলহাজ্ব হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। এরশাদ দেশ বাসীর হৃদয়ে চিরজাগরুক হয়ে আসেন উল্লেখ করে তিনি ১৪ জুলাই তার মৃত্যুবার্ষিকীর দিনকে স্মরণীয় করে রাখতে সরকারী ছুটি ঘোষণার দাবী জানিয়েছেন। সেই সাথে আগামী ১৪ জুলাই প্রয়াত পল্লী বন্ধুর মৃত্যুর তারিখে ঘোষিত উপনির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের দাবী জানান। তিনি বলেন, এই দিনে কোন ভাবেই উপনির্বাচন হতে পারেনা, তারিখ অবশ্যই পিছাতে হবে। তানাহলে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করে দাবী মানতে সরকার কে বাধ্য করা হবে । জাতীয় কৃষক পার্টির সভাপতি, জাপার প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও অতিরিক্ত মহাসচিব সাহিদুর রহমান টেপার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতি সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জাপা চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা মিসেস সাহিদুর রহমান, জাতীয় যুব সংহতির আহবায়ক আসিফ শাহরিয়ার, সদস্য সচিব আহাদ চৌধুরী, জাপা কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এনাম জয়নাল আবেদীন, মো: হেলাল উদ্দীন, পল্লীবন্ধু পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও জাপা চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক উপদেষ্টা ড. মো: নূরুল আযহার, জাতীয় মৎস্যজীবী পার্টির আহবায়ক আজহারুল ইসলাম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.